একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির অস্ট্রেলিয়া শাখার আনুষ্ঠানিক যাত্রা

  • 292
    Shares

একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির অস্ট্রেলিয়া শাখা International Forum for Secular Bangladesh (সেক্যুলার বাংলাদেশ, অস্ট্রেলিয়া) এর আনুষ্ঠানিক যাত্রা গতকাল ৫ই সেপ্টেম্বর শুরু হয়েছে।

সিডনীর রকডেল এলাকার একটি বাঙালি কনভেনশন সেন্টারে ডাঃ একরাম চৌধুরীর নেতৃত্বে অস্ট্রেলিয়ায় মুক্তিযুদ্ধের প্রতি ভালোবাসায় সিক্ত প্রবাসী বাংলাদেশীদের এই মিলন মেলা সংঘটিত হয়। প্রবাসী বাংলাদেশী সমাজের বিভিন্ন স্তরের প্রতিনিধির স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে উক্ত সভা প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে। পেশাজীবী, মানবাধিকার কর্মী, ছাত্র এবং স্থানীয় বাংলাদেশি সমাজের গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব এই সভায় অংশগ্রহণ করেন।

জাতীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে শুরু হওয়া সভায় মহান মুক্তিযুদ্ধের ৩০ লক্ষ শহীদ, ২ লক্ষ মা বোনের আত্মত্যাগ, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানসহ ৭৫ এর ১৫ই আগস্ট নিহত শহীদের শ্রদ্ধার সাথে স্বরণ করা হয়।

ফয়সাল মতিনের সঞ্চালনায় সভায় বক্তারা শহীদ জননী জাহানারা ইমামের নেতৃত্বে ১৯৯২ সনের ১৯ শে জানুয়ারি গঠিত একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মুল কমিটির প্রতিকুল যাত্রাকে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন এবং সমসাময়িক বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে প্রবাসে এর গুরুত্ব ও তাৎপর্য বিশ্লেষণ করেন। সভায় বক্তারা পাকিস্তানি বাহিনী এবং তাদের দোসর জামায়াতি ইসলামী, রাজাকার, আলবদর দ্বারা সংঘটিত গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পাওয়ার লক্ষে অস্ট্রেলিয়ার মূল ধারার রাজনীতিবিদদের সম্পৃক্ত করার প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরেন এবং অস্ট্রেলিয়ায় বেড়ে উঠা নতুন প্রজন্মের কাছে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের প্রকৃত ইতিহাস তুলে ধরার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন।

সভায় অন্যান্য নেতৃবৃন্দের মধ্যে হারুনূর রশিদ, মাকসুদুর রহমান চৌধুরী সুমন, জুয়েল তালুকদার, তানভীর কেনেডি, শাহরিয়ার মাহবুব, সাজ্জাদ সিদ্দিকী, শাহে আলম, হাসান শিমুল ফারুক রবিন এবং ডেভিড বালা বক্তব্য রাখেন। বাংলাদেশ থেকে কেন্দ্রীয় নির্মূল কমিটির গুরুত্বপূর্ণ নেতারা টেলিফোনে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন।

একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মুল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির সম্প্রীতির বিশ্ব তৈরিতে ধর্মনিরপেক্ষ মানবতাবাদী মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বিশ্বের কাছে তুলে ধরার জন্য নির্মূল কমিটির আন্তর্জাতিক ফোরামের ভূমিকা নিয়ে আলোচনা করেন। নির্মূল কমিটির কার্যক্রম বর্তমান বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে প্রশংসিত। আমেরিকা ছাড়াও ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশে কার্যক্রম পরিচালিত হয়। অস্ট্রেলিয়া কমিটির কার্যক্রম ও প্রশংসিত হবে এই আশা ব্যক্ত করেন।

কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে আরো যুক্ত হন সাধারণ সম্পাদক কাজী মুকুল, শহীদ বুদ্ধিজীবী ডাঃ আলীম চৌধুরীর সুযোগ্য কন্যা ডাঃ নুজহাত চৌধুরী এবং কোষাধ্যক্ষ ডাঃ মামুন আল মাহতাব।

সভাপতির বক্তব্যে ডাঃ একরাম চৌধুরী সেক্যুলার বাংলাদেশ অস্ট্রেলিয়ার ভবিষ্যতের কার্যক্রম এর রূপরেখা উপস্থাপন করেন। সভায় ডাঃ একরাম চৌধুরীকে সভাপতি, ফয়সাল মতিনকে সাধারণ সম্পাদক এবং শাহরিয়ার মাহবুবকে সংগঠনিক সম্পাদক করে কেন্দ্রীয় নির্মূল কমিটির অনুমোদনে অস্ট্রেলিয়া শাখার অন্যান্য সদস্যবৃন্দের নাম ঘোষণা করা হয়।

বাংলা প্রবাহ/এম এম

, , ,
শর্টলিংকঃ