করোনা জয়ের গল্প

  • 331
    Shares

করোনার আমার লক্ষণ সমূহ :

১. জ্বর (সাধারণ ১০১°/১০২° ফারেনহাইট ছিল)
২. সর্দি
৩. শুকনো কাশি
৪. ঘ্রাণ শক্তি এবং জিহবার স্বাদ (৮/৯ দিন ছিল না)

গত ২৭ জুন আমার আম্মুর প্রথমে জ্বর দেখা দিয়েছিল তার দুইদিন পর থেকে আমার শরীরে প্রথমে জ্বর এসেছিল তবে সর্দি কিংবা শুকনো কাশি দেখা তখনো পাইনি। তার ৩ দিন পর থেকে হালকা সর্দির সাথে মাথা ব্যাথা ,চোখের পাঁপড়িতে ব্যাথা অনুভব হতে থাকে। দাঁড়িয়ে নিচের তাকাতে চোখের উপর ব্যাথা হতো।জ্বর ৭ দিন ছিল (দিনে একবার /দুইবার আসতো। জ্বর ভালো হওয়ার পর সর্দি এবং শুকনো কাশি ছিল আরো বেশ কয়েকদিন। তবে ঘ্রাণ শক্তি এবং জিহ্বার টেস্ট পুনরায় ঠিক হতে বেশ বেগ পেতে হয়েছিল। এখন আলহামদুলিল্লাহ আমি এবং আম্মু সুস্থ আছি।

জ্বর দেখা দেওয়ার পর থেকে আমি এবং আম্মু দুইজন আলাদা রুমে অবস্থান করেছি।রিপোর্ট পজিটিভ হলো। দিনের পুরোটা সময় কুসুম গরম পানি পান করা, ৩/৪ বার আদা লেবুর চা পান করা ছিল ওই কয়েকদিনের নিত্যদিনের কার্যক্রম। খেতে মন চাইতো না তারপর ও খাওয়ার চেষ্টা করেছি। প্রতিনিয়ত জাতীয় স্বাস্থ্য বাতায়ন এবং বৃহত্তর কুমিল্লা জেলা জনকল্যাণ সমিতির সদস্য ডা : তিশা(রামেক) আপুর সাথে যোগাযোগ করে উনার পরামর্শ নিয়েছি। তবে স্বাভাবিক সময় থেকেও এই সময়ে বেশি পরিমাণ পানি পিপাসা লাগে।এইজন্য কিছুক্ষণ পর পর পানি পান করেছি। ভুল করেও ঠান্ডা পানি পান করি নাই।

এইসময়ে আমাদের বাসার পুরো দায়িত্ব আমার আব্বু এবং ছোট ভাইয়ের উপর ছিল। যতটা সময় তারা বাসায় ছিল এবং প্রয়োজনে বাহির হয়েছে মাস্ক পরা ছিল।আমার মনে হয়না, এই কয়েকদিনে রুমে বাহিরে মাস্ক ব্যতিত বের হয়েছি। এইসময় বেশ কিছু বই, মুভি, নাটক এবং গুগল Garage এর একটা কোর্স সম্পূর্ণ করার সুযোগ হয়েছিল।

যেসব ঔষুধ সেবন করে ছিলাম :
1.NAPA : 500 g (তিনবার)
2. FEXO :120 g (দুইবার)
3. MONAS :10 g( একবার

তবে বয়স্ক মানুষ কিংবা হাঁপানি রোগীর জন্য করোনা একটু ভয়ের। অনেকের শ্বাসকষ্ট হয় তবে আমার হয়নি। সেই সাথে আমার এলাকায় প্রচুর করোনা রোগী আছে, যাদের টেস্ট করলে ১০০% করোনা পজিটিভ পাওয়া যাবে।

সর্বশেষ একটা কথাই বলতে পারি, করোনা নিয়ে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। সাধারণ জ্বর সর্দি মতই একটা রোগ। তবে দীর্ঘস্থায়ী হয় এইটুকুই।

আমাদের এখানে প্রচুর মানুষ আক্রান্ত হয়েছে এবং হচ্ছে। সবার কাছে করোনা এখন ডাল ভাত হয়ে গেছে। সবাই মনে করছে, করোনা হলে হবে ১৫/১৬ দিন শুয়ে থাকবো এইতো। ভয় পাওয়া কোন লক্ষণ নেই।

মো. এনামুল হক হৃদয়
ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ
৪র্থ বর্ষ,প্রথম সেমিষ্টার
সেশন :২০১৬-১৭
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

শর্টলিংকঃ