দীর্ঘ পাঁচ মাস পর প্রথম নেট সেশনেই চেনা ছন্দে কোহলি

  • 12
    Shares

প্রথম নেট সেশনে বিরাট কোহলিকে দেখেই বোঝা যাচ্ছিল না যে, দীর্ঘ পাঁচ মাস পর তিনি ব্যাট হাতে নেমেছেন। নবদীপ সাইনি, যুজবেন্দ্র চাহালদের বিরুদ্ধে ব্যাটে-বলে দারুণ সংযোগ ঘটাচ্ছিলেন ভিকে। যা দেখে দলের হেড কোচ সাইমন কাটিচ বেজায় খুশি। পরে বিরাট বলেন, ‘অবশ্যই মনের মধ্যে আশঙ্কা ছিল। কারণ, লকডাউনের জেরে গত পাঁচ মাস আউটডোরে অনুশীলন করতে পারিনি। কিন্তু নেটে প্রথম বল খেলার পর মনে হচ্ছিল, পাঁচ মাস নয়, আমি যেন ছ’দিন পর ফের ক্রিকেট মাঠে ফিরে এসেছি। প্রথম দিনটা বেশ ভালোই গেল। আসলে লকডাউনের সময় নিয়ম করে শরীরচর্চা করেছিলাম। তার সুফল এখন পাচ্ছি। শরীরে কোনও ক্লান্তি নেই। আরও কিছুদিন প্র্যাকটিস করার পর ম্যাচ খেলার মতো জায়গায় চলে আসতে পারব বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস।’

আজ পর্যন্ত আইপিএল জিততে পারেনি রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। এবার কি তাহলে শিকে ছিঁড়বে? সেই প্রশ্ন এখন ক্রিকেটপ্রেমীদের মনে। তবে বিরাট কোহলি বরাবরই আইপিএলে ভালো পারফর্ম করেন। সেই সঙ্গে আছেন এবি ডি’ভিলিয়ার্সের মতো তারকা ব্যাটসম্যান। তবে বোলিং সমস্যা মেটাতে পারলে আরসিবি এবার কড়া টক্কর দেবে বাকি দলগুলিকে। সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে এখন প্রচণ্ড গরম। সেটাই চিন্তায় ফেলেছে আইপিএলের দলগুলিকে। প্রতিযোগিতা শুরু হবে ১৯ সেপ্টেম্বর। হাতে রয়েছে সপ্তাহ তিনেক সময়। তার মধ্যে পরিবেশের সঙ্গে মানিতে নেওয়াটা জরুরি বলে মনে করছেন আরসিবি’র ক্রিকেট অপারেশন ডিরেক্টর মাইক হেসন। একই সঙ্গে তিনি ইঙ্গিত দিয়েছেন, বিরাট কোহলি ও অ্যারন ফিনচকে দিয়ে ওপেন করাতে চান। সীমিত ওভারের ক্রিকেটে ফিনচ অস্ট্রেলিয়ার ক্যাপ্টেন। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজ খেলে সোজা তিনি দুবাইয়ে দলের সঙ্গে যোগ দেবেন। তবে প্রথম ম্যাচে ফিনচকে পাওয়া নিয়ে কিছুটা অনিশ্চয়তা রয়েছে। সেই কারণে বিকল্প চিন্তাভাবনাও করছে আরসিবি টিম ম্যানেজমেন্ট।

তিনটি ভেন্যুতে খেলা হবে। দুবাই, আবুধাবিতে হবে বেশিরভাগ ম্যাচ। শারজায় ১৪টি ম্যাচ করার পরিকল্পনা নিয়েছে বিসিসিআই। কারণ, পিচের সংখ্যা কম শারজায়। তবে গরমের কারণে উইকেট সহজেই ভাঙবে। বল টার্ন করার সম্ভাবনা বেশি। সেক্ষেত্রে আরসিবি’র তুরুপের তাস হয়ে উঠতে পারেন স্পিনার যুজবেন্দ্র চাহাল ও ওয়াশিংটন সুন্দর। পাশাপাশি ক্রিস মরিসের মতো অলরাউন্ডারের উপরও নজর রাখতে হবে।

বাংলা প্রবাহ/এম এম

 

,
শর্টলিংকঃ