বিয়ে মানেই কেরিয়ারের শেষ নয়

  • 3
    Shares

লকডাউন শিথিল হতেই দেশের মানুষ ‘নিউ নর্মাল’-এ প্রবেশ করেছেন। জি টিভি তাদের শোয়ের শ্যুটিং শুরু করে দিয়েছে। এতদিন পুরনো অনুষ্ঠান দেখে দর্শকরাও ক্লান্ত হয়ে পড়েছিলেন। জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘কুমকুম ভাগ্য’ দর্শকদের জন্য একেবারে নতুন ট্যুইস্ট নিয়ে ফিরে এসেছে। রিয়া চরিত্রটিতে অভিনেত্রী পূজা বন্দ্যোপাধ্যায় যোগ দিয়েছেন। এই অভিনেত্রীর প্রবেশ দর্শকদের কাছে ধারাবাহিকের জনপ্রিয়তা আরও বাড়িয়ে তুলেছে।

বিয়ের পরও কেরিয়ারে উন্নতি করা এবং এগিয়ে যাওয়ার কথা যেসব মহিলারা চিন্তা করেন, তাঁদের প্রতি পূর্ণ সমর্থন রয়েছে পূজার। ব্যক্তিগত জীবনের ঘটনা থেকেই

তিনি এমন বিশ্বাসে উপনীত হয়েছেন। তিনি বলছিলেন, ‘আমি ছোটবেলায় দেখেছি, আমার মা মুনশিয়ানার সঙ্গে বাড়ির কাজ এবং কেরিয়ার একসঙ্গে এগিয়ে নিয়ে গিয়েছেন। তাঁর ইচ্ছাশক্তি এবং পরিশ্রম আমাকে জীবনে এগিয়ে যেতে অনুপ্রাণিত করেছে। অভিনেত্রী হওয়ার পরে যখন আমি বিয়ে করতে চেয়েছি, আমার পরিবার রাজি ছিল না। কারণ তারা ভেবেছিল, এর ফলে আমার কেরিয়ার শেষ হয়ে যাবে। আমি পরিবারকে বুঝিয়েছিলাম, আমার যদি প্রতিভা থাকে, ইচ্ছে থাকে তাহলে কাজ পাওয়ার ক্ষেত্রে কেউ আমাকে আটকাতে পারবে না। আমার তিন বছর বিয়ে হয়ে গেল। বাড়ি এবং কাজ দু’দিকই সমানভাবে সামলাচ্ছি।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমি সেই সমস্ত মহিলাদের উজ্জীবিত করার চেষ্টা করি, যাঁরা মনে করেন বিয়ে মানেই তাঁদের কেরিয়ারের ইতি। আমি তাঁদের স্পষ্ট বলতে চাই, বিয়ে জীবনের একটা অঙ্গ। এর মানে কেরিয়ার থেকে অবসর নেওয়া নয়।’

বাস্তব জীবনে তিনি যখন মহিলাদের উজ্জীবিত করছেন, তখন ‘কুমকুম ভাগ্য’ ধারাবাহিকে পূজার চরিত্রটি প্রজ্ঞার সামনে অশুভ শক্তি হয়ে দাঁড়াচ্ছে।

বাংলা প্রবাহ/এম এম

,
শর্টলিংকঃ