রাজনৈতিক দলের প্রত্যক্ষ সহযোগিতা ছাড়াই আন্দোলন অব্যাহত রেখেছি: কাজী মুকুল

শহীদ জননী জাহানারা ইমামের ২৭ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আজ (২৯ জুন) একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি, নওগাঁ জেলা শাখা আয়োজিত ‘শহীদ জননী জাহানারা ইমামের ২৭ তম মৃত্যুবার্ষিকী ও একাত্তরের যুদ্ধাপরাধী বিচারের স্থবিরতা’ শীর্ষক এক আন্তর্জা্তিক ওয়েবিনারে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক কাজী মুকুল প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘একাত্তরের-এর যুদ্ধাপরাধীদের বিচার এবং মৌলবাদী সাম্প্রদায়িক রাজনীতি নিষিদ্ধের এই আন্দোলনের গুরুত্বের কথা বিবেচনায় রেখে রাজপথে এই আন্দোলন অব্যাহত রাখার জন্য ১৯৯৫ সালে নির্মূল কমিটি পুনর্গঠনের উদ্যোগ গ্রহণ কর। সে বছর মে মাসে ঢাকা মহানগর সম্মেলন করার মধ্য দিয়ে মহানগরের বিভিন্ন ওয়ার্ডে নির্মূল কমিটির গড়ে ওঠে এবং নতুন কর্মী বাহিনীর সৃষ্টি হয় । মূলতঃ তখন থেকে রাজনৈতিক দলের প্রত্যক্ষ সহযোগিতা ছাড়াই আমরা আন্দোলন অব্যাহত রেখেছি, শহীদ জননী জাহানারা ইমামের অবর্তমানে আন্দোলনের হাল ধরেছিলেন কবি সুফিয়া কামাল, অধ্যাপক কবীর চৌধুরী, এডভোকেট গাজীউল হক, ব্যারিস্টার শওকত আলী খান, সঙ্গীত শিল্পী কলিম শরাফী, বিচারপতি কে এম সোবহান, কবি শামসুর রাহমান, অধ্যাপক খান সারওয়ার মুরশিদ ও আরও অনেকেই যারা আজ আমাদের মাঝে নেই। শহীদ জননী জাহানারা ইমাম, জননী সাহসিকা সুফিয়া কামাল থেকে আরম্ভ করে যাদের আমরা হারিয়েছি— তাদের মৃত্যুশোককে আমরা শক্তিতে রূপান্তরিত করেছি।’

একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি, নওগাঁ জেলার ধামইরহাট উপজেলা শাখার আহ্বায়ক আবদুল হাই দুলালের সভাপতিত্বে এবং নওগাঁ জেলার সাধারণ সম্পাদক ইসরাফিল খান বাপ্পির সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি শিক্ষাবিদ কলামিস্ট মমতাজ লতিফ, নির্মূল কমিটি চিকিৎসা সহায়ক কমিটির সম্মানিত সাধারণ সম্পাদক ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের হেপাটোলজি ডিপার্টমেন্ট এর সম্মানিত চেয়ারম্যান অধ্যাপক মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল, কেন্দ্রীয় সহ-সাধারণ সম্পাদক উপাধ্যক্ষ কামরুজ্জামান, সর্ব ইউরোপীয়ান নির্মূল কমিটির সভাপতি মানবাধিকারকর্মী তরুণ কান্তি চৌধুরী, নওগাঁ সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান জনাব ইলিয়াস তুহিন রেজা, নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক শফিকুর রহমান মামুন, নওগাঁ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পারভিন আক্তার, নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও বক্তারপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোরশেদুল আলম। এছাড়া সংগঠনের নেতা-কর্মীবৃন্দ ও  স্থানীয় বক্তারা বক্তব্য রাখেন।

, ,
শর্টলিংকঃ