শোকে-শ্রদ্ধায় প্রণব মুখোপাধ্যায়ের শেষ বিদায়

  • 10
    Shares

পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দিল্লিতে শেষকৃত্য সম্পন্ন হল ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের। দিল্লির লোদী রোডে গান স্যালুটের মাধ্যমে শেষ বিদায় জানানো হল ভারতের ১৩তম রাষ্ট্রপতিকে। অবসান হল পাঁচ দশক দিল্লিতে দাপিয়ে বেড়ানো এক বর্ণময় বাঙালি রাজনীতিবিদ প্রণব মুখোপাধ্যায় যুগের।

চিকিৎসাধীন থাকাকালীন প্রণব মুখোপাধ্যায়ের কোভিড পজিটিভ রিপোর্ট এসেছিল। তাই দিল্লির রাজাজি রোডের বাড়ি থেকে শুরু করে লোদী রোড মহাশ্মশান, সর্বত্রই কোভিড প্রটোকল মেনে শেষকৃত্য করা হয়। পিপিই কিট পরেই অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন করেন পুত্র অভিজিৎ মুখার্জী। পরিবারের অন্য সদস্যরাও সবাই পিপিই কিট পরে শামিল হয়েছিলেন শেষকৃত্যে। এ ছাড়া কোভিড প্রটোকল মেনে শ্মশানেও লোকসংখ্যা সীমিত রাখা হয়েছিল।

এর আগে দিল্লির সেনা হাসপাতাল থেকে প্রণবের মরদেহ নিয়ে আসা হয় তাঁর লোদী রোডের বাসভভনে। সেখানে রাষ্ট্রপতি প্রধানমন্ত্রী-সহ শাসক বিরোধী সব দলের রাজনীতিকরা তাঁকে শেষ শ্রদ্ধা জানান। তবে কোভিডের কারণে মৃতদেহ বাড়ির একটি ঘরে রাখা হয়। কিন্তু সেখানে কাউকে যেতে দেওয়া হয়নি। পরিবর্তে একটি বেদি তৈরি করে প্রণবের ছবি রাখা হয়। সেই ছবিতেই ফুল মালা দিয়ে শ্রদ্ধা জানান সবাই। রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও প্রয়াত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতিকে শ্রদ্ধা জানান উপ রাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা, চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়াত, সস্ত্রীক প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং, কংগ্রেসের লোকসভার দলনেতা অধীর চৌধুরী, কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালসহ বহু নেতা-মন্ত্রী ও সাধারণ মানুষ।

বাড়িতে পড়ে গিয়ে মাথায় চোট পান প্রণব মুখোপাধ্যায়। প্রায় তিন সপ্তাহ চিকিৎসাধীন থাকার পর গতকাল সোমবার তার মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুতে সাত দিনের জাতীয় শোক ঘোষণা করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। এই সাত দিন জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হবে।

বাংলা প্রবাহ/এম এম

,
শর্টলিংকঃ