সঙ্গীর মন কি উড়ু উড়ু? নজর রাখুন তাঁর সোশ্যাল মিডিয়ার পাতা

  • 1
    Share

লকডাউন, আনলক, আবার সীমিত লকডাউন – এসবের জেরে প্রেমের দফারফা। যখনতখন বেরিয়ে সঙ্গীর সঙ্গে দেখা করার, একান্তে একটু সময় কাটানোর জো নেই। দীর্ঘদিন দেখা-সাক্ষাৎ না হওয়ায় একটু যেন টানটাও আলগা হচ্ছে। এই ফাঁক গলেই সঙ্গীর থেকে দূরে সরে যাচ্ছে না তো মনটাও? শুধু প্রেমিক-প্রেমিকাই নন, স্বামী বা স্ত্রী সম্পর্কেও আপনার যদি এমন খটকা লেগে থাকে, তাহলেও ঘাবড়াবেন না। কারণ, এর উত্তর বের করে ফেলতে পারবেন আপনি নিজেই। সঙ্গীর সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় একটু নজর রাখুন তো। দেখুন তো, কিছু কিছু বদল চোখে পড়ছে কি না। আপনার জন্য রইল টিপস –

সঙ্গী কি আজকাল সোশ্যাল মিডিয়ায় একটু বেশি সময় কাটাচ্ছে? আপনার সঙ্গে কাটানো সময়ের থেকেও যদি তা বেশি হয়, তবে তো সংশয়ের অবকাশ থাকেই। বুঝতে হবে, আপনার সঙ্গে আলাপ-আলোচনার চেয়ে তিনি সোশ্যাল মিডিয়ার প্রতিই বেশি আকর্ষণ অনুভব করছেন। যা আপনাদের একান্ত সময়ে ভাগ বসাচ্ছে।

খেয়াল রাখুন তাঁর সাম্প্রতিক পোস্টগুলোয়। আপনাদের একান্ত জীবনযাপন কি সোশ্যাল মিডিয়ায় খোলসা করে দিচ্ছেন সঙ্গী? আপনাদের সঙ্গে তাঁর কীরকম সম্পর্ক, তার অনেকটাই কি প্রকাশ করছেন? সেক্ষেত্রে নিজেদের ব্যক্তিগত জীবন কিন্তু আর ব্যক্তিগত থাকছে না। এ বিষয়ে গোড়া থেকে সতর্ক হোন।

একই ডেস্কটপ ব্যবহার করেন তো দু’জনে? সঙ্গী কম্পিউটার থেকে উঠে যাওয়ার পর একঝলকে সার্চ হিস্ট্রিটা দেখে নিন তো। অন্য এক বা একাধিক ব্যক্তির তথ্যতালাশ করেছেন কি? তাহলে তো ১২ আনা ধ্যানই অন্যদের প্রতি, আপনার প্রতি তুলনায় কম।

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, দেখুন তো প্রাক্তন প্রেমিক বা প্রেমিকার প্রতি আপনার সঙ্গী সোশ্যাল মিডিয়ার পাতা ঠিক কী বোঝাতে চাইছে। তাঁদের সঙ্গে ভারচুয়াল যোগাযোগটা কি একটু বেশিই হচ্ছে আজকাল? মনস্তাত্বিকদের মতে, এটা কিন্তু একটা খারাপ অভ্যেস। অতীত সম্পূর্ণ না ভুলে পিছুটান রেখে যাওয়া, যা বর্তমানকে দুর্বিসহ করে তুলতে পারে। এমনটা হলে, সত্যিই বুঝতে হবে, আপনার সঙ্গে সঙ্গীর মনের দূরত্ব বাড়ছে। এক ছাদের নিচে ২৪ঘণ্টা থাকলেও, তিনি আসলে দূরের মানুষ হয়ে গিয়েছেন।

সম্পর্কে টানাপোড়েন থাকেই। তবে তা যেন স্থায়ী হয়ে না দাঁড়ায়, সেদিকে নজর রাখুন। সম্পর্কের প্রতি আরেকটু যত্নশীল হয়ে সঙ্গীকে বোঝার চেষ্টা করুন। তাঁর মনের নানা ত্রুটি-বিচ্যুতিকে দূরে ঠেলে নয়, বরং আপনার যত্ন দিয়ে তাঁকে বের করে আনুন সেসব অন্ধকার জায়গা থেকে। তবেই তো মধুর হবে দাম্পত্য, প্রেমজীবন। পরিপূর্ণ হয়ে উঠবে অমলিন ভালবাসায়।

বাংলা প্রবাহ/এম এম

, ,
শর্টলিংকঃ