কান চলচ্চিত্র উৎসবে প্রথমবার পাকিস্তানি সিনেমা

Ecare Solutions

প্রথমবারের মতো কান চলচ্চিত্র উৎসবের অফিসিয়াল সিলেকশনে জায়গা করে নিল কোনো পাকিস্তানি সিনেমা। তরুণ নির্মাতা সায়েম সাদিকের ‘জয়ল্যান্ড’ নির্বাচিত হয়েছে আঁ সাঁর্তে রিগা শাখায়। এটাই তার পরিচালিত প্রথম ছবি। ফলে ক্যামেরা দ’র পুরস্কারের জন্য বিবেচিত হবেন তিনি। বাংলাদেশের ক্ষেত্রে যেমনটা ঘটেছিল গত আসরে আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ সাদের ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ ছবির দৌলতে। যদিও শেষ পর্যন্ত কোনও পুরস্কার জেতেনি ছবিটি।

২২ এপ্রিল, শুক্রবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ‘জয়ল্যান্ড’ ছবির প্রথম স্থিরচিত্র শেয়ার করেছেন সায়েম সাদিক। তিনি লিখেছেন, ‘আমি খুবই উচ্ছ্বসিত ও ধন্য। ৭৫তম কান চলচ্চিত্র উৎসবে আমাদের ছবির ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হতে চলেছে। এত বড় অর্জন আমার কলাকুশলীদেরও প্রাপ্য। তাই ভার্চুয়ালি আলিঙ্গন করে নিলাম।’

‘জয়ল্যান্ড’ ছবিতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন সানা জাফরি। তিনি ছবিটির সহ-প্রযোজক ও কাস্টিং পরিচালক। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই তরুণী লিখেছেন, ‘এটা সত্যি। এটা ঘটেছে। ইতিহাস সৃষ্টি হয়েছে। কান চলচ্চিত্র উৎসবে প্রথমবার পাকিস্তানি পূর্ণদৈর্ঘ্য কাহিনিচিত্র!’

লাহোরের ট্রান্সজেন্ডার অভিনেতা আলিনা খান অন্যতম আরেকটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন এতে। এছাড়া আছেন আলি জুনেজো, রাস্তি ফারুক, সানিয়া সাঈদ, সোহেল সামির, সালমান পীরজাদা প্রমুখ। ছবিটির কলাকুশলীদের অভিনন্দন জানিয়েছেন পাকিস্তানি তারকারা। অভিনেতা ওসমান খালিদ বাট লিখেছেন, ‘চমৎকার ব্যাপার। পাকিস্তানি চলচ্চিত্রের জন্য বিশাল একটি পাওয়া। অভিনন্দন, সায়েম ও জয়ল্যান্ড টিমকে!’

অভিনেত্রী মাহিরা খান টুইটারে ‘জয়ল্যান্ড’ টিমকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। তার দৃষ্টিতে এই অর্জন অসাধারণ। অভিনেতা আদনান মালিকের মতে, ‘মনকে উৎফুল্ল করে দেওয়ার মতো দারুণ খবর! অস্কারজয়ী নির্মাতা শারমীন ওবায়েদ চিনয়ের অনুভূতিতে, ‘পাকিস্তানি হিসেবে এর চেয়ে গর্বের আর কী হতে পারে!’

চলচ্চিত্রবিষয়ক বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ আয়োজনের মধ্যে এর আগে ভেনিস উৎসবে জায়গা করে নেন সায়েম সাদিক। ২০১৯ সালে এই আয়োজনে দেখানো হয় তার স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবি ‘ডারলিং’। একই বছর সাউথ বাই সাউথওয়েস্ট উৎসবে স্থান পায় সায়েম সাদিকের ‘নাইস টকিং টু ইউ’।

 

 

বাংলা প্রবাহ/ সু

Ecare Solutions
শর্টলিংকঃ