ক্যাটল স্পেশাল ট্রেন, গরুপ্রতি খরচ ৫৯১ টাকা

Ecare Solutions

আসন্ন পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে পশু খামারিদের ভোগান্তি কমিয়ে, স্বল্প খরচে প্রান্তিক খামারির পশু ভোক্তাদের কাছে পৌঁছে দিতে ক্যাটল স্পেশাল ট্রেনের ব্যবস্থা করেছে পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

ঈদের ৪ দিন আগে (মঙ্গলবার ৫ জুলাই) থেকে পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ে দফতরের আওতায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ঢাকা পর্যন্ত ক্যাটল স্পেশাল ট্রেনে গবাদীপশু পরিবহন করা হবে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ঢাকা প্রতিটি ওয়াগনে ভাড়া পড়বে ১১ হাজার ৮৯০ টাকা। সেই ক্ষেত্রে গরু প্রতি খরচ পড়বে ৫৯১ টাকা ৪০ পয়সা। প্রতি ওয়াগনে ২০টি করে গরু বহন করা যাবে।

সোমবার (২৭ জুন) সকালে পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ে (ডিআরএম) শাহীদুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে পাকশী বিভাগীয় দফতরের বাণিজ্যিক সূত্রে জানা যায়, কোরবানির ঈদের আগে ট্রাকে করে গরু পরিবহন করে ঢাকা যেতে প্রায় ২৪ থেকে ৩০ ঘণ্টা সময় লাগে। ট্রাক থেকে গরুগুলো নামাতে কষ্ট, ট্রেনে সহজেই ওঠানো-নামানো যায়। ক্যাটল ট্রেনে সময় লাগবে মাত্র ১২ ঘণ্টা। নির্ধারিত সময়ে ট্রেনগুলো ঢাকা গিয়ে পৌঁছাবে। যানজটের কোনো সমস্যা থাকবে না। তীব্র গরমে পশুগুলো যেন অসুস্থ হয়ে না পড়ে সেজন্য পশুভর্তি ট্রেনটি রাতে চলাচল করবে। পশুর সঙ্গে পরিচর্যাকারী একই ওয়াগনে ভ্রমণ করতে পারবেন, সেই ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। পশু পরিবহনে কাভার্ড ওয়াগনগুলোতে বায়ু চলাচলের ব্যবস্থা থাকবে। তবে রোদ-বৃষ্টি প্রবেশের সুযোগ নেই। ফলে পশুগুলো অসুস্থ হওয়ার ভয় নেই।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের পাকশী বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা (ডিসিও) নাসির উদ্দিন জানান চাঁপাইনবাবগঞ্জ স্টেশন থেকে ক্যাটল ট্রেনটি মঙ্গলবার (৫ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৪টায় ছেড়ে কাঁকনহাট, রাজশাহী স্টেশন হয়ে চাটমোহর, উল্লাপাড়া, বঙ্গবন্ধু সেতু (পশ্চিম) জয়দেবপুর, টঙ্গি, তেজগাঁও হয়ে ঢাকা পৌঁছাবে ভোর ৫টায়।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ঢাকা প্রতি ওয়াগন (বগিতে) খরচ পড়বে ১১ হাজার ৮৯০ টাকা। সেক্ষেত্রে গরু প্রতি খরচ ৫৯১ টাকা ৪০ পয়সা পড়বে। ফলে প্রতি ওয়াগনে ২০টি করে গরু বহন করা যাবে। ট্রেনে কয়েক শতাধিক পশু পরিবহন করা যাবে। কৃষকদের চাহিদা থাকলে ট্রেনের সংখ্যা বাড়ানো হবে।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ের পরিবহন কর্মকর্তা (ডিটিও) আনোয়ার হোসেন জানান, ইতোমধ্যে ওয়াগনগুলো গোছানোর কাজ চলছে।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ে ব্যবস্থাপক (ডিআরএম) শাহীদুল ইসলাম জানান, এবারের কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে গবাদি পশু পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চল থেকে পশু খামারিদের চাহিদার ভিত্তিতে ক্যাটল ট্রেন ঢাকা অভিমুখে পরিবহন করা মূল উদ্দেশ্য। ঈদ মৌসুমে ট্রাকে গরু পরিবহন করতে সময় লাগে প্রায় ২০/২৫ ঘণ্টা, ট্রাকে ভাড়া লাগতো প্রায় ২০ হাজার টাকা। আর ক্যাটল ট্রেনে সময় লাগবে ১২ ঘণ্টা। খরচ গরু প্রতি পড়বে ৫৯১ টাকা ৪০ পয়সা। এতে এ অঞ্চলের সব প্রান্তিক পশু খামারিরা লাভবান হবে।

ডিআরএম শাহীদুল ইসলাম আরও বলেন, কম সময়ে এবং স্বল্প খরচে প্রান্তিক খামারিদের পশু ভোক্তাদের কাছে পৌঁছে দিতে খুব স্বল্প মূল্যে পশু পরিবহনের উদ্যোগ নিয়েছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

বাংলা প্রবাহ/এন এ

Ecare Solutions
শর্টলিংকঃ