নতুন বছরে নোবিপ্রবিয়ানদের প্রত্যাশা

Ecare Solutions

বিশেষ প্রতিবেদন

২০২৩ সালকে নিয়ে প্রত্যাশার প্রাপ্তিতে যোগ হয়েছে নতুন মাত্রা। বিদায়ী বছরটি প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তির স্মৃতি পেছনে ফেলে নতুন বছরে নতুন আশায় বুক বাঁধতে পিছিয়ে নেই নোবিপ্রবিয়ানরাও। নতুন বছরে কয়েকজন নোবিপ্রবিয়ান নিজের ভাবনা, প্রত্যাশা,প্রাপ্তি আর স্বপ্নের কথা ব্যক্ত করেছেন বাংলা প্রবাহের কাছে

 

ছবি:ইসরাত জাহান

ইসরাত জাহান
২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষ,শিক্ষা বিভাগ

নতুন বছরে প্রতিটি মানুষের জীবনে বয়ে আনবে সুখ, শান্তি, সমৃদ্ধি এই প্রত্যাশা থাকে সকলের। বছরের প্রথম দিনে প্রতিটি মানুষ কিছু স্বপ্ন দেখে যে পুরো বছর কি করবে,নিজের স্বপ্ন গুলো কিভাবে পূরন করবে, সাথে থাকে নতুন কিছু পাওয়ার ইচ্ছা।কেউ কেউ আবার পুরোনো বছর কে মনে করে প্রত্যাশা করতে ভয় পায়, তাদের কাছে মনে হয় প্রত্যাশা যেন কষ্ট বয়ে আনে কিন্তু সব কিছু মিলিয়েই বেঁচে থাকতে হবে,একজন মানুষকে বেঁচে থাকতে সাহায্য করতে হবে।সকলের এমন প্রত্যাশা নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে।নতুন বছর তার জন্য মহান সৃষ্টিকর্তা ভালো কিছু রেখেছেন এই আশা রাখতে হবে।নতুন বছর যেন প্রতিটি মানুষের জীবনে সুখ বয়ে আনে এটাই থাকে সকলের চাওয়া।কিছু কিছু মানুষের অপ্রাপ্তি গুলো যেন প্রাপ্তি তে পরিপূর্ণতা পায়।আবার মানুষের মনে থেকে যায় বিগত বছরের কিছু সুপ্ত রাগ, অভিমান, জমা থাকে অভিযোগ, যেগুলো তার প্রিয় মানুষগুলোকে ঘিরেই। আবার তাদের কাছে প্রত্যাশা রাখে নতুন বছরের সব ভুলে সব নতুন করে আনন্দদায়ক নতুনত্ব বয়ে আনবে জীবনে।সকলের আশা, ইচ্ছা, স্বপ্ন গুলো পূরন হোক এটাই আমার প্রত্যাশা। নতুন বছরের শুভেচ্ছা আপনাদের সবাইকে। ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন।

ছবি:জুমন নিয়াজ

জুমন নিয়াজ
২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষ,কৃষি বিভাগ

নতুন বছর মানেই নতুন এক দিগন্তের দ্বার উম্মোচন। বিগত বছরের অর্জনের তৃপ্তি ও ভবিষ্যতের প্রত্যাশা নিয়ে শুরু হয় নতুন বছর। নতুন বছরের সূর্য উদয়ের সঙ্গে সঙ্গে সূচনা হয় নতুনভাবে পথ চলার প্রত্যয়। অমিত সম্ভাবনা ও আশার আলো নিয়ে শুরু হয় নতুন এক সূর্যোদয়। সামগ্রিকভাবে গতবছর খুবই তাৎপর্যপূর্ণ ছিলো। ২০২৩ সালকে স্বাগত জানিয়ে নতুন বছরে আমাদের প্রত্যাশা সবকিছু ভালো হোক, ভালোভাবে চলুক। কিন্তু প্রত্যাশার বাইরে অনেক সময় অনেক কিছু ঘটে যায়। এ কারণে হতাশা আসে আবার প্রত্যাশারও শেষ হয় না। ২২ এর শুরুতে আমরা করোনা জয় করে এসেছি। ২০২০-২১ সালের করোনার সংকটকালে আমাদের সার্বিক অর্থনৈতিক ও সামাজিক পরিস্থিতি বিশ্বের অনেক দেশ থেকে ভালো ছিল। কিন্তু অপ্রত্যাশিতভাবে ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ বাধায় আবার সবকিছু ওলট-পালট হতে শুরু করে।যুদ্ধের ফলে সমগ্র বিশ্বে অর্থনৈতিক অস্থিরতার সৃষ্টি হয়। জ্বালানি তেলের দাম অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে যায়, সরবরাহব্যবস্থাও ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে। ফলে অনেক দেশ অর্থনৈতিক স্থবিরতা ও মন্দার সম্মুখীন হচ্ছে। বাংলাদেশ এসব থেকে রক্ষা পায়নি।এর প্রভাবে জ্বালানি তেলের দাম দ্বিগুণ বেড়ে যায়, বৈদেশিক রিজার্ভের ওপর চাপ পড়েছে। যেহেতু এ খাতটি মূলত আমদানিনির্ভর, সে কারণে বছরের শুরুতে যেখানে ৪৮ বিলিয়ন ডলার রিজার্ভ ছিল, সেটা বছরের শেষ দিকে প্রায় ৩৩ বিলিয়নে নেমে আসে। ফলে অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে আমরা যেভাবে দ্রুততার সঙ্গে এগিয়ে যাচ্ছিলাম, সেখানে বাধার সম্মুখীন হলাম।নতুন সকল কিছু সুন্দর ভাবে চলুক এই প্রত্যাশা।

ছবি:সায়মা আহমেদ ইরা

 

সায়মা আহমেদ ইরা
২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষ,আইন বিভাগ

পুরনো বছর ঘুরে নতুন বছরের আগমন ঘটলো।
আশা-প্রত্যাশা সবার জীবনেই থাকে। নতুন এই বছরে আমিও কিছু প্রত্যাশা রাখি।একান্ত ব্যক্তিগত জীবনে আমি আমার পুরনো বন্ধুদের সাথে নতুন উদ্যোমে জীবন চালনা করতে চাই, পরিবারের ভরসার জায়গাটা অটুট রাখতে চাই।নিজের একাডেমিক ক্যরিয়ারে ভালো ফলাফল করা আমার একান্ত কাম্য, কারণ ভবিষ্যৎে প্রচুর টাকা উপার্জন করার ইচ্ছা আমি বরাবরই রাখি। আমার ক্যম্পাসের সকল ডিপার্টমেন্টের বন্ধুদের সব ডিপ্রেশন কেটে যাক।তারাও বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রকৃত বন্ধু খুঁজে পেয়ে একটু ভালো থাকুক বা থাকার চেষ্টা করুক। বিশ্ববিদ্যালয়ে বন্ধু হয় না এই ট্রেন্ডের পতন ঘটুক।
আমি নতুন বছরে খুব করে চাই আমার প্রিয় ক্যম্পাসের সর্বোপরি উন্নতি হোক।নতুন বছরে আমার সকল প্রত্যাশার উপরে হলো আমি নিজেকে ভালোবাসতে চাই।আমার প্রায়োরিটি লিস্টে আমি থাকবো সবার আগে, তাহলেই জীবন সুন্দর হতে বাধ্য।

ছবি:তৌহিদুল ইসলাম রাফি


তৌহিদুল ইসলাম রাফি

২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষ, টিএইচএম বিভাগ

নতুন বছরে সবার জীবন অনাবিল আনন্দে ভরে উঠুক।আমার প্রত্যাশার মধ্যে অন্যতম একজন আদর্শ মানুষ হিসেবে নিজেকে বিকশিত করা,নিজের পরিবারের উপর চাপ কমিয়ে স্বাবলম্বী হওয়া
।নিজের প্রয়োগিক কর্মদক্ষতা বৃদ্ধি করা।সামাজিক সংগঠন গুলোর সাথে যুক্ত হয়ে সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে থাকা,গরীব-দুঃখীদের সাহায্য করা ও পাশে দাঁড়ানো। সৎভাবে সুন্দর জীবন গড়ে তোলার চেষ্টা থাকবে।বছর ঘুরে নতুন বছর আসবে আর নতুন নতুন স্মৃতি তৈরি হবে সবকিছু মিলিয়ে জীবনকে উপভোগ করতে হবে। সবাইকে শুভেচ্ছা জানাই নতুন বছরের।শুভ হোক প্রতিটি মানুষের পথ চলা।

মন্দিরা চক্রবর্তী
২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষ, ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগ

পুরোনো সকল গ্লানি,ক্লান্তি মুছে নতুন বছর ভরে উঠুক সবার জন্য অনাবিল আনন্দে। নতুন বছরে প্রত্যাশা থাকবে মানুষের অপ্রাপ্তি গুলো যেন প্রাপ্তি তে পরিপূর্ণতা পায়।মানুষ বাচে তার প্রেরণায়, প্রত্যাশায় আর সপ্নকে কেন্দ্র করে।নতুন বছরে তেমনি কিছু চাওয়া আছে। আশেপাশের মানুষগুলোকে ভালো রাখা। নিজেকে ভালো রাখা। নিজের শখের খেয়াল রাখা। ভবিষ্যৎ নির্ভর বর্তমানের কাজগুলোতে সামঞ্জস্য রাখা। নিজেকে আরকেটু গোছানো দেখতে চাই। ছোট ছোট যে ভুল গুলো বিগত বছরগুলোতে করেছি তা নতুনে এড়াতে চাই।

Ecare Solutions
, ,
শর্টলিংকঃ